• শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০২:০৮ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
উত্তরের চার জেলার সাথে রংপুরের বাস চলাচল বন্ধ, দুর্ভোগে যাত্রীরা খানসামায় প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনীতে ৩৯টি স্টলে উন্নত জাতের পশু-পাখি প্রদর্শন নীলফামারীতে প্রানি সম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শণী শুরু ক্ষেতলালে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ‍্যে হাতাহাতি  সড়ক দূর্ঘটনায় সংগীত শিল্পী পাগল হাসানসহ নিহত ২ পরীমণিকে আদালতে হাজির হতে সমন জারি দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায়, জনজীবন বিপর্যস্ত কারারক্ষী ও নারী কয়েদির অনৈতিক সম্পর্ক: নারী হাজতিকে মারধরের অভিযোগ খানসামায় আটক ৫ জুয়াড়ির ভ্রাম্যমাণ আদালতে কারাদণ্ড 

একনেকে তিন প্রকল্প অনুমোদন

Gov. Logoঢাকা: ৫০৩ কোটি ৮৬ লাখ টাকার তিনটি প্রকল্প অনুমোদন করেছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। মঙ্গলবার সকালে পরিকল্পনামন্ত্রণালয়ে একনেকের নিয়মিত সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়। সভায় প্রধানমন্ত্রী ও একনেক সভাপতি শেখ হাসিনা সভাপতিত্ব করেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন, পানিসম্পদ মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম.এ. মান্নানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল সাংবাদিকদের জানান, মোট প্রকল্প বরাদ্দের মধ্যে সরকারি অর্থায়ন ৪শ ২৭ কোটি ১২ লক্ষ টাকা ও সংস্থার নিজস্ব তহবিলের পরিমাণ থাকবে ৭৬ কোটি ৭৪ লক্ষ টাকা। ৩টি প্রকল্পই নতুন প্রকল্প। প্রকল্প ৩টির মধ্যে একটি সম্পূর্ণ সরকারি অর্থায়নে ও বাকি ২টি সরকারি ও সংস্থার নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়িত হবে।

পাস হওয়া প্রথম প্রকল্পটি হলো, “বহদ্দারহাট বারইপাড়া হতে কর্ণফুলী নদী পর্যন্ত খাল খনন” শীর্ষক প্রকল্প। এতে ২শ ৮৯ কোটি ৪৪ লক্ষ টাকা ব্যয় করা হবে। প্রকল্পটির বাস্তবায়নকাল ধরা হয়েছে জানুয়ারি ২০১৪ হতে জুন ২০১৬ পর্যন্ত। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে।

এ প্রকল্পের আওতায় চট্টগ্রাম শহরে বর্ষাকালে দ্রুত বৃষ্টির পানি অপসারণের জন্য শহরের খালগুলো পুনর্বাসন এবং কিছু নতুন খাল খনন করা হবে।এছাড়া পানি ধরে রাখার জন্য কিছু পুকুর খনন করা হবে।

তিনি বলেন, ‘এ প্রকল্পের মধ্য দিয়ে চট্টগ্রাম শহরে ২.৯ কি. মি. দৈর্ঘ্য ও ৬৫ ফুট প্রস্থ খাল খনন করা হবে। এছাড়া খালের উভয় পাশে ২০ ফুট প্রস্থের রাস্তা নির্মাণের প্রস্তাব করা হয়েছে। যাতে যানচলাচলসহ খালটি সহজে পরিষ্কার এবং আশে পাশের যানজট দূর করা যায়।’

দ্বিতীয় প্রকল্পটি হলো, “কন্টেইনার ও কার্গো হ্যান্ডলিং যন্ত্রপাতি সংগ্রহ” শীর্ষক প্রকল্প। ৮৭ কোটি ৫৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে এ প্রকল্পটির বাস্তবায়নকাল ধরা হয়েছে জানুয়ারি ২০১৪ হতে জুন ২০১৬ পর্যন্ত। কন্টেইনার ও কার্গো হ্যান্ডলিং যন্ত্রপাতি ক্রয়ের মাধ্যমে বন্দর ব্যবহারকারীদের দ্রুত ও নির্ভরযোগ্য সেবা প্রদান ও মংলা বন্দরের কার্গো হ্যান্ডলিং সক্ষমতা বৃদ্ধি করাই এ প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য। নৌ-পরিবহণ মন্ত্রণালয়ের আওতায় মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে।

সর্বশেষ প্রকল্পটি হলো, “পাগলা-জগন্নাথপুর-রাণীগঞ্জ-আউশকান্দি মহাসড়কের রাণীগঞ্জে কুশিয়ারা নদীর উপর সেতু নির্মাণ” প্রকল্প। ১শ ২৬ কোটি ৮৭ লক্ষ টাকা ব্যয় করা হবে এ প্রকল্পটিতে। সম্পূর্ণ জিওবি অর্থায়নে সড়ক বিভাগের আওতায় সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে। প্রকল্পটির বাস্তবায়নকাল ধরা হয়েছে জুলাই ২০১৪ হতে জুন ২০১৮ পর্যন্ত।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আর্কাইভ