• শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:৩৪ অপরাহ্ন |

কাজের সন্ধানে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো লালকু

লাশচিলমারী প্রতিনিধি: স্ত্রী, সন্তানসহ কাজের উদ্দেশ্য ঢাকায় যাওয়াই কাল হলো লালকুর। মাকে কথা দিয়েছিল ঈদের আগে আসবে কিন্তু সে আসাই তার শেষ আসা তা ভাবেনি তার মা গছা বেওয়া। তবে তার পরিবারের দাবি লালকুকে তার স্ত্রী এবং স্ত্রীর পরিবারের লোকজন হত্যা করেছে।
জানা গেছে, জেলার চিলমারী উপজেলার কাজল ডাঙ্গা পুটিমারী এলাকার মৃত আঃ হাকিমের ছেলে বদিউজ্জামান লালকুর সঙ্গে একই উপজেলার মধ্য মাছাবান্দা এলাকার আলিফ উদ্দিন মিস্ত্রির মেয়ে মমেনার সাথে প্রায় ২০ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের প্রায় ৫বছর পরে স্ত্রী তার শশুরের পরিবারের লোকজন থেকে আলাদা হতে চাপ দিতে থাকে কিন্তু লালকু এতে রাজি না হওয়ায় এই নিয়ে প্রায় সময় স্বামী স্ত্রীর মধ্যে প্রায় সময় ঝগড়া বিবাদ চলে আসছিল। এরই মধ্যে তাদের কোল জুড়ে ৩ ছেলে ও ১ মেয়ে সন্তানের জন্ম নেয়। কিন্তু বিবাদ থামে নি। অবশেষে সকলের সূখের আশায় কিছুদিন আগে স্ত্রী সন্তানসহ ঢাকার উদ্দ্যেশে পাড়ি জমায় এবং ঢাকা সদরঘাট এলাকায় স্বামী স্ত্রী দুজন বিভিন্ন ধরনের কাজ শুরু করে। কিন্তু অভাব ও স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া বিবাদ তাদের পিচু ছাড়েনি। অবশেষে ঘটনাদিন শুক্রবার রাতে আবারো স্বামী স্ত্রীর মধ্যে প্রচন্ড ঝগড়া ও হাতাহাতি হয় এসময় মমেনার ফুফাত দুই ভাই শাহাজাদা, জেনারুল ও তার দুই বন্ধু মিয়ে লালকুকে মারডাং করে বলে জানান লালকুর বড় ছেলে মনির(১৬)। মনির আরো জানায় তার বাবাকে তার মামারা যখন মারপিট করে এসময় সে তার খালু সিদ্দিককে ডাকতে যায় এবং প্রায় ১ ঘন্টা পর ফিরে এসে দেখে দরজা বন্দ এসময় দরজার খুলে তার বাবা লাশ ঘরের ধরনায় ঝুলতে দেখে। পরে পুলিশ খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের নিকট লাশ হস্তান্তর করে। রবিবার সকালে নিজ বাড়ি চিলমারী পুটিমারী এলাকায় পৌঁছেলে এলাকায় শোকের ছাড়া নেমে আসে এসময় কান্নায় ভেঙ্গে পরে তার মা। দক্ষিন কেরানীগঞ্জ ঢাকা থানার অফিসার ইনচার্জ জানান এব্যাপারে থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে। চিলমারী থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন ঘটনাটি আমরা শুনেছি এবং দাপন কাপনের জন্য বলা হয়েছে। তবে মৃতের স্ত্রী মোমেনা সকল অভিযোগ অশিকার করে বলেন ঘটনার দিন টাকা পয়সার বিষয়ে নিয়ে একটু ঝগড়া হয়েছেল আমি ঘটনার দিন রাতেই ভাইয়ের বাড়ি চলে যাই পরে শুনতে পাই আমার স্বামী আতœহত্যা করেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ