• বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০২৩, ০৪:২৯ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
সৈয়দপুরে সাড়ে সাত শ’ দুস্থ মানুষের মাঝে রোজার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ রঙ্গপুর গবেষণা পরিষদ নীলফামারী জেলা শাখার দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন চিরিরবন্দরে ট্রেনের ধাক্কায় বৃদ্ধের মৃত্যু সৈয়দপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের ৭৫ বছর পূর্তি উদযাপন সৈয়দপুরের ঘর পেলেন আরো ১১৫টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার চালু হচ্ছে চিলাহাটি-ঢাকা রুটে আর একটি আন্তঃনগর ট্রেন ফুলবাড়ীতে শিক্ষার্থীদের মেধা অম্বেষনে দিনব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা জয়পুরহাটে মাদক ব্যবসায়ীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড চিরিরবন্দরে ড্রাম ট্রাক চলাচল ও বালুরঘাট বন্ধের দাবীতে মানববন্ধন সৈয়দপুরের যুবক বিদেশী পিস্তলসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জে গ্রেফতার

খানসামায় খুদে বিজ্ঞানীদের ভাবনায় আলোকিত বিজ্ঞান মেলা

সিসি নিউজ।। অব্যাহত লোডশেডিং ও ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে জমিতে সেচ দেওয়া নিয়ে কৃষকেরা চিন্তিত। কৃষকদের চিন্তা দূর করতে বিনা খরচে কৃষকদের জন্য সেচ সুবিধায় এক পরিকল্পনা নিয়ে হাজির বিজ্ঞান মেলায় খুদে বিজ্ঞানীরা। ককশিটের তৈরি সৌরবিদ্যুৎচালিত পাতকুয়ার প্রজেক্ট হাতে মেলার স্টলে দর্শনার্থীদের কাছে উপস্থাপনে ব্যস্ত নিঝুম, পিংকি, খুশি, মালা, নাজমা, তমা, আরিফ, নাজমুল, আলামিন ও স্বপন। এরা দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার গোয়ালডিহি ইউনিয়নের নলবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

সোমবার দিনাজপুরের খানসামা উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত বিজ্ঞান মেলায় এ ধরনের ২৪টি প্রতিষ্ঠানের খুদে বিজ্ঞানী তাদের উদ্ভাবনী প্রদর্শনের জন্য নিয়ে এসেছিল। ৪৪তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ উপলক্ষে খানসামা উপজেলা চত্ত্বরে হচ্ছে এই বিজ্ঞান মেলা। আজ মঙ্গলবার দুইদিন ব্যাপী এ মেলার আনুষ্ঠানিকতা শেষ হবে।

মেলায় অংশগ্রহণকারী নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী নিশাত রায় নিঝুম জানায়, তার তৈরি প্রজেক্টটির নাম ‘সোলার সিস্টেম পাতকুয়া’ যা ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তরের নিচ পর্যন্ত গোলাকার আকৃতিতে মাটি খনন করে চারপাশ থেকে চুয়ানো পানি ধরে রাখার জন্য করা । সেই পাতকুয়ার পানি লো লিফট পাম্পের (এলএলপি) মাধ্যমে প্রথমে একটি ট্যাংকে তোলা হবে। তারপর সোলার সিস্টেমের শক্তি সৌর ব্যবহার করে যন্ত্রের মাধ্যমে সেই পানি দিয়ে কৃষিজমিতে সেচ দেওয়া যাবে। এছাড়া বাড়িঘরেও ব্যবহার করা যাবে।

খুদে বিজ্ঞানী নিঝুমের সহযোগি খুশী ও পিংকি জানায়, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে প্রতিনিয়ত পানির স্তর নিচের দিকে নামছে। এতে ক্ষতির মুখে পড়েছেন এ অঞ্চলের চাষিরা। একসময় কৃষি ও সুপেয় পানির নির্ভরযোগ্য আধার ছিল পাতকুয়া। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অগভীর ও গভীর নলকূপসহ নানা প্রযুক্তির কাছে হারিয়ে যায় পাতকুয়া। সেই পাতকুয়াকেই আধুনিক রুপ দেওয়া হয়েছে। সৌর বিদ্যুৎ ব্যবহার করে সারা বছর পানি পাওয়া যাবে।

একই প্রতিষ্ঠানের খুদে বিজ্ঞানী মালা, আরিফ ও স্বপন জানান, এছাড়াও পাতকুপের ঢাকনা ও সোলার প্যানেল থেকে বর্ষা মৌসুমের মেঘের পানি সংরক্ষণ (রিজার্ভার) করার ব্যবস্থা দেখানো হয়েছে। যা গ্রীষ্ম মৌসুমে পানি সংকটের কালে এ পানি কৃষি ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে। প্রয়োজনে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে সংরক্ষনকৃত বৃষ্টির পানি পানযোগ্য গড়ে তোলার কথা জানালেন তাদের সহযোগি অপর দুই খুদে বিজ্ঞানী অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী তমা ও নাজমুল।

পাশাপাশি মেলায় অংশ নেয়া অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের খুদে বিজ্ঞানীরাও তাদের নানা বিষয়ে উদ্ভাবনী প্রযুক্তিতে চমক রয়েছে। স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে শিক্ষার্থীরা দর্শনার্থীদের নানা বিষয়ের ওপর ছুঁড়ে দেয়া প্রশ্ন অবলীলায় তথ্যসমৃদ্ধ ব্যাখ্যায় জবাব দিচ্ছে। মেলায় আগত দর্শনার্থীরা খুদে বিজ্ঞানীদের জবাবে সন্তষ্ট- তা অবলীলায় প্রকাশ করছেন মেলা চত্ত্বরে।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মনজুরুল হক জানান, মোট ২৪টি স্কুলের ষষ্ঠ-দ্বাদশ শ্রেণি পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করছে এই বিজ্ঞান মেলায়। তিনি বলেন, এখানে বিভিন্ন স্কুল থেকে শিক্ষার্থীরা এসেছে। বিচার-বিবেচনা শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণীর মাধ্যমে আজ মঙ্গলবার শেষ হবে বিজ্ঞান মেলার আয়োজন।’

সোমবার খানসামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাশিদা আক্তারের সভাপতিত্বে মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সফিউল আযম চৌধুরী লায়ন। এ সময় উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা পারভীন, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির, সমাজসেবা কর্মকর্তা মাসুদ রানা প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

আর্কাইভ