• শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৪:০১ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :
বেঞ্চ ও বারের সুসম্পর্কের মধ্য দিয়ে বিচার ব্যবস্থা সমৃদ্ধ হয়- নীলফামারীতে প্রধান বিচারপতি সৈয়দপুর বিজ্ঞান কলেজ চত্ত্বর থেকে কিশোরের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার  নীলফামারী শহরে অগ্নিকান্ডে ৫ দোকান পুড়ে ছাই জলঢাকায় মিন্টু, কিশোরগঞ্জে রশিদুল, সৈয়দপুরে রিয়াদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্রের বিষদাত ভেঙে দেওয়া হবে: নানক সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভজে পুত্রের জয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য মাউশির ৯ নির্দেশনা ভোটের আগেই জামিন পেলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী ফুলবাড়ীতে ৪৮ রোগী পেল ২৪ লাখ টাকার চিকিৎসা সহায়তার চেক ফুলবাড়ীতে চারটি চোরাই গরু উদ্ধার, গ্রেফতার তিন

দিনাজপুর ও ঠাকুরগাঁওয়ে আনসার আল ইসলামের ৪ সদস্য গ্রেপ্তার

সিসি নিউজ।। নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের দাওয়াতি শাখার উত্তরাঞ্চল প্রধান মুনতাসীর বিল্লাহসহ চার সক্রিয় সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। তাদের দিনাজপুর ও ঠাকুরগাঁওয়ের বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ শুক্রবার র‍্যাব-১৩ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‍্যাব সদর দপ্তরের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক খন্দকার আল মঈন।

সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব জানায়, রাষ্ট্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ডিজিএফআই এর তথ্যের ভিত্তিতে দিনাজপুর ও ঠাকুরগাঁও জেলা থেকে চার জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা হলেন-ঠাকুরগাঁওয়ের ইয়াছিন, দিনাজপুরের মুনতাসির বিল্লাহ, আব্দুল মালেক ও সাব্বির হোসেন। এ সময় তাদের কাছ থেকে ধর্মীয় উগ্রবাদী বই ও মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তাররা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন ‘আনসার আল ইসলাম’ এর সদস্য বলে স্বীকার করেছে। তারা আফগানিস্তানে তালেবানের উত্থানে উদ্বুদ্ধ হয়ে আল কায়েদা মতাদর্শের জঙ্গি সংগঠনটির কার্যক্রম পরিচালনা করছিল।

তারা জানান, বিভিন্ন সময় অনলাইনে তামিম আল আদনানী, হারুন ইজহার, গুনবীসহ বিভিন্ন আধ্যাত্মিক নেতার বক্তব্য দেখে উগ্রবাদে উদ্বুদ্ধ হয়ে সংগঠনের সদস্যদের মাধ্যমে এ সংগঠনে যোগ দেন। পরবর্তীতে তারা উত্তরাঞ্চলে সংগঠনের সদস্য সংগ্রহে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও সরাসরি দাওয়াতি কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

এ ছাড়া বিভিন্ন দেশের মুসলমানদের ওপর নির্যাতনের ভিডিও ফুটেজ দেখিয়ে এবং বিভিন্ন ধর্মীয় অপব্যাখ্যার মাধ্যমে ভুল বুঝিয়ে সংগঠনে যোগদান ও তাদের তথাকথিত জিহাদের প্রতি আগ্রহী করার মাধ্যমে ইসলামি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় উদ্বুদ্ধ করে বলে জানায় র‍্যাব।

র‍্যাব সদর দপ্তরের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক খন্দকার আল মঈন আরও বলেন, ‘সংগঠনকে শক্তিশালী করতে তারা সদস্য ও অর্থ সংগ্রহ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। তবে, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নাশকতার কোনো পরিকল্পনা আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’ সেই সঙ্গে আরও কারা কারা এর সঙ্গে জড়িত তাদের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদে জানার চেষ্টা করা হবে বলে জানান এ কর্মকর্তা।


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

আর্কাইভ