• শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৪:৫৬ পূর্বাহ্ন |
শিরোনাম :
বেঞ্চ ও বারের সুসম্পর্কের মধ্য দিয়ে বিচার ব্যবস্থা সমৃদ্ধ হয়- নীলফামারীতে প্রধান বিচারপতি সৈয়দপুর বিজ্ঞান কলেজ চত্ত্বর থেকে কিশোরের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার  নীলফামারী শহরে অগ্নিকান্ডে ৫ দোকান পুড়ে ছাই জলঢাকায় মিন্টু, কিশোরগঞ্জে রশিদুল, সৈয়দপুরে রিয়াদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্রের বিষদাত ভেঙে দেওয়া হবে: নানক সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভজে পুত্রের জয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য মাউশির ৯ নির্দেশনা ভোটের আগেই জামিন পেলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী ফুলবাড়ীতে ৪৮ রোগী পেল ২৪ লাখ টাকার চিকিৎসা সহায়তার চেক ফুলবাড়ীতে চারটি চোরাই গরু উদ্ধার, গ্রেফতার তিন

তিস্তা সেচ ক্যানেলের প্রধান বাধ বিধ্বস্ত: ৫ শতাধিক একর জমির ফসল বিনষ্ট

Kishorgonj News Pix_30.04.14
নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্যানেল সংস্কারে গড়িমসি ও দায়িত্বে অবহেলার কারণে মঙ্গলবার রাতে তিস্তা সেচ ক্যানেলের প্রধান বাধ বিধ্বস্ত হয়ে ৫ শতাধিক একর জমির ফসল বিনষ্ট হয়েছে। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ৩ শতাধিক কৃষক।
নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের দক্ষিণ বড়ভিটা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। এলাকাবাসী জানায়, ঘটনার দিন সন্ধ্যা থেকেই ক্যানেলের ডান তীর বাধে ফাটল দেখা দেয়। রাতে বাধের প্রায় ৪০থেকে ৪৫ ফুট বিধ্বস্থ হলে ক্যানেলের পানি হু হু করে আবাদি জমিতে ঢুকতে শুরু করে। ক্যানেলে পানির চাপ বেশী থাকায় আধা ঘন্টার মধ্যেই বিস্তীর্ণ এলাকার জমির ফসল পানিতে ডুবে যায়। পানির প্রচন্ড তোড়ে ক্ষেতের ফসল দাড়িয়ে থাকতে না পেরে একেবারে মাটিতে নুইয়ে পড়ে শত শত এশর জমির ফসল। কৃষকদের অভিযোগ, যখন পানির প্রয়োজন, তখন তারা পানি দেয় না। অথচ এখন পানির তেমন দরকার নেই, এখন ক্যানেলে উপছে পড়া পানি। আর ক”দিন পড়েই তার ক্ষেতের ফসল ঘরে তুলবে। আর এ সময় এ ঘটনায় তারা একেবারেই বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। ক্যানেলের পানি না পেয়ে অধিক খরচ করে তারা নিজেরা শ্যালো পাম্পের পানি ব্যবহার করে আবাদ  করেছে। এ যেন তাদের কাছে গোদের উপর বিষ ফোড়ের সামিল। তারা বলেছেন, ইদুরের গর্ত সংস্কার না করেই অসময়ে অতিরিক্ত পানি ছাড়ার  কারণেই এ ঘটনাটি ঘটেছে। ওই গ্রামের কৃষক আফসার আলী, অহিদুল ইসলাম, দেলোয়ার হোসেন, অব্দুল গফুরসহ অনেক কৃষক অন্যের জমি চুক্তিতে নিয়ে ধান আবাদ করেছে। এখন তাদের মাথায় হাত। খাবে কি আর দেনাই বা শোধ করবে কিভাবে তা নিয়ে তারা শংকিত। এ ব্যাপারে ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফজলার রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে তিনি বলেন, কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণেই এ ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হলে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া যায়। তারা জানান, কৃষকরা বাধের নীচের দিকে বোরিং করে পানি নেয়ার কারণেই এ ঘটনাটি ঘটেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আর্কাইভ