• বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৩১ পূর্বাহ্ন |

প্রেমিকের সুটকেস থেকে প্রেমিকা উদ্ধার!

image_97453.gifসিসি ডেস্ক: চীনে সম্প্রতি প্রেমিকের সুটকেস থেকে এক প্রেমিকাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় প্রেমিক ওয়াং কে আটক করা হয়েছে।

সম্প্রতি বান্ধবী মু মাকে নিয়ে শানঝি প্রদেশের ঝিয়ান শহরে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন ওয়াং কে। সেখানকার এক হোটেলে অবস্থানকালে দুজনার মধ্যে বেশ খানিকটা ঝগড়া হয়। ঝগড়ার জের ধরে প্রেমিকের সঙ্গে সম্পর্ক ছেদের ঘোষণা দেন মু। এতেই খেপে যান কে। তিনি তখন ৫ ফুট ১০ ইঞ্চি উচ্চতার মুকে বেঁধে সোজা সুটকেসে চালান করে দেন। এরপর হোটেল থেকে বেড়িয়ে একটি ভাড়া গাড়িতে করে নিজ বাড়ির উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেন। তার বাড়ি লিয়াওনিনং প্রদেশের শেনইয়াং শহরে।
কিন্তু পথে সুটকেসে বন্দি মুয়ের চিৎকার শুনতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেন গাড়িচালক।
এ সম্পর্কে স্থানীয় পুলিশের মুখপাত্র জানায়,‘লিংয়ানিনং যাওয়ার পথে চালক সুটকেস থেকে কান্নার শব্দ শুনতে পান এবং এর মধ্যে মুয়ের অস্তিত্ব আবিষ্কার করেন।’ এরপর ওই চালক আটক মুকে ছেড়ে দেয়ার জন্য ওয়াংকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু এতে সে রাজি না হওয়ায়  পুলিশকে খবর দেন চালক। গত ১৫ জুন গাড়িটি শেনিইয়াংয়ে পৌঁছানোর পর পুলিশ ওয়াংকে আটক করে জেলহাজতে পুরে দেন। যথারীতি উদ্ধার পায় মু।
পরে পুলিশি জেরার মুখে ওয়াং জানান, মুকে তিনি ভালোবাসেন এবং অনেক দিন ধরেই একসঙ্গে থাকছেন এই প্রেমিক জুটি। মুকে নিয়ে শানঝিতে বেড়ানোর সময় ছোটখাট ঘটনা নিয়ে দুজনার মধ্যে ঝগড়া হয়। তখন মু তার সঙ্গে আর সম্পর্ক রাখবেন না বলে জানিয়ে দেন। এতে মরিয়া হয়ে ওঠেন ওয়াং। সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে তিনি মুয়ের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করা এবং এমনকি লিয়াওনিং ফিরে যাওয়ার পর তার জন্য একজন কাজের লোক রেখে দেয়াসহ নানা প্রতিশ্রুতি দিতে থাকেন। কিন্তু এসব মিষ্টি কথায় এতটুকু মন গলেনি নিষ্ঠুর মুয়ের! বরং সম্পর্ক ভেঙে দেয়ার সিদ্ধান্তে অটল থাকেন মু। ফলে প্রেমিকাকে সুটকেসবন্দি করেই বাড়ি ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেন বেপরোয়া প্রেমিক। তবে শেনইয়াং ফেরার পর বান্ধবী মুকে নিয়ে তার পরবর্তী পরিকল্পনা কি ছিল সে বিষয়ে কিছুই জানা যায়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ