• বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:০৬ পূর্বাহ্ন |

ম্যাচ বাই ম্যাচ এগুতে চান হাথুরুসিংহে

Criখেলাধুলা ডেস্ক : আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারের বিশ্বকাপ মিশন শুরু হবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। বিশ্বকাপ দলের সংশ্লিষ্ট প্রায় সবাই বলেছেন এবার বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের লক্ষ্য দ্বিতীয় রাউন্ড। আর সে লক্ষ্য পুরুনে একক কোন ম্যাচকে টার্গেট করে নয় বরং ম্যাচ বাই ম্যাচ এগুতে চান প্রধান কোন চন্দ্রিকা হাথুরুসিংহে।
বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপ দলের শেষ সংবাদ সম্মেলনে হাজির হয়ে এমন মন্তব্য করেন হাথুরুসিংহে। তিনি বলেন, ‘আমার তো ইচ্ছে হয় শেষ পর্যন্ত যাওয়ার। কিন্তু আমি বাস্তবতা কি তা নিয়ে ভাবছি। আমরা প্রথমত একটি একটি করে ম্যাচ নিয়ে চিন্তা করব, তারপর লক্ষ্য থাকবে দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়া, তারপর আবারও একটি একটি করে ম্যাচ নিয়ে ভাবতে হবে। যে  কোনো দলের বিপক্ষে খেলা হতে পারে। আমরা জানি, দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার জন্য আমাদের অন্তত চারটি ম্যাচ জিততে হবে। আমাদের অন্তত তিনটি ম্যাচ জয়ের সামর্থ্য আছে। তারপর যদি চারটি জিতে যাই, তবে আমরা কোয়ার্টার ফাইনালে উঠব। এখন আমাদের দৃষ্টি পুরোপুরি আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের ওপর।’
বিশ্বকাপের জন্য অনেকদিন যাবত প্রস্তুতি নিচ্ছে দল। আর এই প্রস্তুতিতে সন্তুষ্ট প্রধান কোচ। এ বিষয়ে তিনি বলেছেন, ‘হ্যাঁ, প্রস্তুতি নিয়ে আমি খুশি। যদি খেলোয়াড়ের সামর্থের কথা বলেন, তবে হ্যাঁ; আমি তাদের প্রতিভা এবং প্রয়োগ ক্ষমতা নিয়ে খুশি। গত ৬ মাসে তারা যে ধরনের উন্নতি করেছে এবং দক্ষতার উন্নয়নে কাজ করেছে তা নিয়ে আমি সন্তুষ্ট। সবার দৃষ্টিভঙ্গি এবং প্রতিজ্ঞা অনেক দৃঢ়।’
বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ আফগানিস্তানের সাথে। এই ম্যাচে জয়টা অনেক গুরুত্বপূর্ণ টাইগারদের জন্য। তাই এই ম্যাচ নিয়ে আলাদা কোন পরিকল্পনা থাকছে কিনা জানতে চাইলে হাথুরুসিংহে বলেছেন, ‘প্রতিতিটি ম্যাচই সমান গুরুত্বপূর্ণ। তবে এখনকার মনোযোগ প্রথম ম্যাচের উপর। তবে প্রতিপক্ষ নিয়ে নয়, আমরা ভাবছি আমাদের দক্ষতা, আমাদের খেলার পরিকল্পনা নিয়ে। আমরা যদি আমাদের  সেরাটা খেলতে পারি তবে আমাদের চেয়ে দক্ষতায় পিছিয়ে থাকা দলকে আমরা হারাতে পারব। তবে যারা আমাদের চেয়ে এগিয়ে আছে তাদের হারাতে হলে তাদের বাজে সময়ের আশা করতে হবে এবং নিজেদের সেরাটা খেলতে হবে।’
প্রায় সব দল এখন খেলার মধ্যে থাকলেও বাংলাদেশ অনেকদিন যাবত ধরে খেলার মধ্যে নেই। বিশ্বকাপে এটা প্রভাব ফেলবে কিনা জানতে চাইলে কোচ বলেন, ‘এটা একদিক থেকে ভালই হয়েছে। কারণ যারা অনেক দিন ধরে খেলছে তাদের তুলনায় ফ্র্রেশ হয়ে  খেলতে পারব আমরা।’
বিশ্বকাপ শুরুর প্রায় তিন সপ্তাহ আগে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছে ক্রিকেট দল। সেখানে দলের পরিকল্পনা কী থাকছে-এমন প্রশ্নে হাথুরুসিংহে বলেছেন, ‘সেখানে আমরা চেষ্টা করব কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার জন্য এবং কন্ডিশন কাজে লাগিয়ে আমাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করার জন্য। ব্রিসবেনে দুটি ম্যাচ খেলব। তখনই বোঝা যাবে আমরা সেখান থেকে কতটা আত্মবিশ্বাস নিতে পারছি।’
বেশ কিছুদিন আগে অস্ত্রোপাচার হলেও এখনো পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেননি ওপেনার তামিম ইকবাল। বিশ্বকাপে তাকে নিয়ে শঙ্কিত নাকি জানতে চাইলে প্রধান কোচ বলেছেন, ‘তামিম ইনজুরি থেকে সুস্থ হচ্ছে।  সে আমাদের পরিকল্পনায় আছে। আমরা প্রথম ম্যাচে মাঠে নামার আগে সে হয়তো দুটি ম্যাচ খেলতে পারবে। বিজয় এবং সৌম্যও খুব মেধাবী ক্রিকেটার। সুতরাং তারা যত দ্রুত কন্ডিশনের সাথে মিলে যেতে পারবে, তত দ্রুত আমরা সাফল্যের আশা করতে পারব। আর তামিম শতভাগ ফিট না হলে তাকে খেলানো হবে না।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ