• বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:১৯ পূর্বাহ্ন |

চিরিরবন্দরে নিহত যুবদল কর্মীর লাশের দাফন সম্পন্ন: পুলিশের মামলা

Death Body of Rezwanদিনাজপুর প্রতিনিধি : জেলার চিরিরবন্দরে পুলিশের সাথে সংঘর্ষে নিহত যুবদল কর্মী মো. রেজওয়ানুল হোসেন’র (২২) লাশ ময়নাতদন্ত শেষে স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করেছে পুলিশ।
শনিবার বিকেল সাড়ে ৩টায় ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের সদস্যদের নিকট হস্তান্তর করা হয়। পরে নিহতের লাশ পারিবারিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়।
এদিকে ১২ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৫০-৬০ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।
গত শুক্রবার বিকেলে চিরিরবন্দর উপজেলার পুনট্টি ইউনিয়নের তুলসিপুর গ্রামে এজাহারভুক্ত আসামী নিহত রেজওয়ানের পিতা হবিবর রহমানকে আটক করলে পরিবারের সদস্যরা তাকে ছাড়িয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে গ্রামবাসি পুলিশের উপর হামলা করে। এ সময় পুলিশ গ্রামবাসিকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে যুবদল কর্মী মো. রেজওয়ান হোসেন নিহত হয়। এ সময় গুলিবিদ্ধ হয় নিহত রেজওয়ানের মা আম্বিয়া বেগম (৪৫) দাদী হনুফা বেগম (৭০) ও ছোট ভাই হায়দার (১৯) ও গ্রামবাসির হামলায় ৪ পুলিশের এএসআই মোস্তাফিজুর রহমান, রবিউল ইসলাম, কনস্টেবল হাবিবুল্লাহ ও জাহাঙ্গীর আলম আহত হয়।
শুক্রবার রাত ১১টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সুশান্ত রায়, ভাইস চেয়ারম্যান নুর আলম সরকার দুলু, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোরশেদ উল আলম ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিমেক হাসপাতালে নিয়ে যায়।
এ ঘটনায় চিরিরবন্দর থানার এসআই আতোয়ার রহমান বাদী হয়ে শুক্রবার রাতেই ১২ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৫০-৬০ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নম্বর ১৭।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ