• শুক্রবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৭:৪৮ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
সৈয়দপুরে প্রাথমিকে নিয়োগ পরীক্ষায় ডিভাইস ব্যবহার করায় আটক-৩ নীলফামারীতে গণজাগরণের সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা কুয়াশা কেটে যাওয়ায় সাড়ে ৬ ঘন্টা পর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে ফ্লাইট চলাচল স্বাভাবিক ঘন কুয়াশার কারনে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে ফ্লাইট উঠানামা ব্যাহত সৈয়দপুর লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পেলেন মসিউর রহমান খানসামা উপজেলায় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল পাচ্ছে ২৩ হাজার শিশু প্রধানমন্ত্রী নিজের নির্বাচনী এলাকা যাচ্ছেন আগামীকাল বাংলাদেশ সীড এসোসিয়েশন এর নির্বাহী সদস্য হলেন ডোমারের আনোয়ার হোসেন কাভার্ড ভ্যানে আগুন: ছাত্রদল নেতাসহ গ্রেপ্তার ৩

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী’র ভূয়া পিএস মামুন আটক !

Dinajpur-Vua PS-Picসিসি নিউজ: প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী অ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমান এমপির ভূয়া পিএস পরিচয়দানকারী মামুনুর রশীদ ওরফে মামুন (৩৫) নামের এক যুবককে আটক করেছে পার্বতীপুর মডেল থানা পুলিশ ।
পার্বতীপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয় থেকে তাকে রোববার দুপুরে আটক করা হয়। তার বাবার নাম নুরুল ইসলাম। বাড়ী পার্বতীপুর উপজেলার মন্মথপুর ইউনিয়নের পশ্চিম রাজাবাসর গ্রামে। অভিযোগে জানা যায়, মামুনুর রশীদ নিজেকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রীর পিএস পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে সাধারন মানুষের সাথে প্রতারনা ও চাঁদাবাজি করে আসছিল। সে রংপুরের ফেরদৌস কবির নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে বড়কুপুররিয়া কয়লা খনিতে দু’জনকে চাকরী দেবার কথা বলে প্রথম কিস্তির ৫ লাখ টাকা গ্রহন করে। ফেরদৌস কবিরের বাবার নাম রফিকুল ইসলাম। বাড়ী রংপুর কোতয়ালী থানার জানকি ধাপেরহাট গ্রামে। অনুরুপভাবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল ইসলামের কাছ থেকে ৬ জনকে প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক হিসেবে চাকরী দেবার কথা বলে সে ৪ কিস্তিতে ১৩ লাখ ২৫ হাজার টাকা আদায় করে।
এ ব্যাপারে অভিযোগকারী ফেরদৌস কবিরের সাথে কথা বলে জানা যায়, মামনুর রশীদ দীর্ঘদিন ধরে মন্ত্রীর পিএস পরিচয় দিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে সাধারন মানুষদের কাছ থেকে অর্থ আদায় করে আসছিল। রংপুর সদরের রিপন নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে সে ৫ লাখ টাকা আদায় করেছে বলে ফেরদৌস কবির উলে¬খ করেন। মামুনুর রশীদ ওরফে মামুন সাথে দিনাজপুর শহরে অবস্থানরত একজন ভিডিও ক্যামরাম্যান জড়িত আছে বলে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে। নিজেকে টেলিভিশনের সাংবাদিক পরিচয়দানকারী ওই ভিপিও ক্যামরাম্যানের দোকানে প্রতারক মামুনকে প্রায় বসে থাকতে দেখা যায় বলে সূত্রটি জানায়।
পার্বতীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। এঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে বলে তিনি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আর্কাইভ