• শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:১৭ অপরাহ্ন |

ঢাবিতে ছাত্রলীগ-ছাত্রদলের সংঘর্ষ: আহত ১০

সিসি নিউজ ডেস্ক ।। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীদের ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে।ছাত্রদল নেতাকর্মীরা উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামানের সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছিলেন বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এতে সংগঠনের ১০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে ছাত্রদল। ছাত্রদলের অভিযোগ, উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামানের সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার পথে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাদের ওপর হামলা চালিয়েছে।

তবে ঢাবি ছাত্রলীগের সভাপাতি সনজিত চন্দ্র দাস এই হামলার ঘটনাকে ছাত্রদলের অন্তর্দ্বন্দ্বের বহিঃপ্রকাশ বলে মন্তব্য করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঢাবি উপাচার্যের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য বিকাল ৪টার কিছুক্ষণ পরে নীলক্ষেত মোড়ে জড়ো হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। এ সময় তারা ক্যাম্পাসে প্রবেশের চেষ্টা করলে স্যার এএফ রহমান হল ছাত্রলীগের সভাপতি রিয়াজুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মুনেম শাহরিয়ার মুনের নেতৃত্বে হল ছাত্রলীগের প্রায় অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী তাদের ওপর হামলা করে। হামলায় ছাত্রদলের প্রায় দশজন নেতাকর্মী আহত হয়েছে।

এ ঘটনায় আহতরা হলেন- ছাত্রদলের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি খোরশেদ আলম সোহেল, সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাসিরউদ্দিন শাওন, রাজু আহমেদ, ফারহান, আরিফ, শামিম আক্তার শুভ, নাজমুস সাকিব, মুন্সী সোহাগ এবং মুহসিন হলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নয়ন।

আহতরা ঢাকা মেডিকেল কলেজসহ আশেপাশের হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন। আহতের বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের একাধিক নেতাকর্মী নিশ্চিত করেছেন।

হামলার বিষয়ে ছাত্রদলের সভাপতি খোরশেদ আলম সোহেল বলেন, ‘আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশের সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অতর্কিত হামলা করে। এতে আমাদের অসংখ্য নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। তারা ঢাকা মেডিকেল ও ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।’

হামলার বিষয়ে ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস বলেন, ‘ছাত্রদলের ওপর হামলাকারীরা ছাত্রলীগের নেতাকর্মী নয়। তাদের মধ্যে ছয়টি গ্রুপ আছে। তারা যখন স্মারকলিপি প্রদান করতে আসছিল তখন তাদেরই একটা গ্রুপ ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিয়ে হামলা করে। তাদের উদ্দেশ্য ছাত্রলীগকে বিতর্কিত করা।’

সার্বিক বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘আমরা শিক্ষার্থীদের অতিথি হিসেবে মনে করি না। আমরা তাদের অভিভাবক হিসেবে আমাদের সন্তানের মতো দেখাশোনা করি। সব ছাত্রসংগঠনগুলো আমাদের কাছে সমান। ছাত্রসংগঠনগুলোর মধ্যে পড়াশোনার পাশাপাশি মূল্যবোধ গড়ে উঠুক আমরা চাই। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা সবার সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে সেই শিক্ষা দেই।’

এর আগে শিক্ষার্থীদের সমস্যা সমাধানে বিভিন্ন দাবি নিয়ে ভিসির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনসহ সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। সেখান থেকে বের হয়ে বিভিন্ন গ্রুপে ভাগ হয়ে ক্যাম্পাসে অবস্থান নেয় ছাত্রলীগ। ভিসি চত্বরে সার্জেন্ট জহুরুল হক হল, মুহসিন হল, কবি জসিমউদদীন হল, সলিমুল্লাহ মুসলিম হল এবং বাকি হলগুলোর ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা টিএসসির দিকে অবস্থান নিয়ে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন। এছাড়াও বিকাল ৩টার আগে থেকেই পুরো ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মহড়া দিতে দেখা যায়।

উৎস: যুগান্তর


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ