• শুক্রবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৬:৪৯ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
সৈয়দপুরে প্রাথমিকে নিয়োগ পরীক্ষায় ডিভাইস ব্যবহার করায় আটক-৩ নীলফামারীতে গণজাগরণের সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা কুয়াশা কেটে যাওয়ায় সাড়ে ৬ ঘন্টা পর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে ফ্লাইট চলাচল স্বাভাবিক ঘন কুয়াশার কারনে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে ফ্লাইট উঠানামা ব্যাহত সৈয়দপুর লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পেলেন মসিউর রহমান খানসামা উপজেলায় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল পাচ্ছে ২৩ হাজার শিশু প্রধানমন্ত্রী নিজের নির্বাচনী এলাকা যাচ্ছেন আগামীকাল বাংলাদেশ সীড এসোসিয়েশন এর নির্বাহী সদস্য হলেন ডোমারের আনোয়ার হোসেন কাভার্ড ভ্যানে আগুন: ছাত্রদল নেতাসহ গ্রেপ্তার ৩

রংপুরে ডেঙ্গুতে প্রাণ গেল আরও একজনের

সিসি নিউজ ডেস্ক।। রংপুর বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় (সোমবার সকাল থেকে আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টা পর্যন্ত) ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে ৪৯ জন। একই সময়ে রংপুরে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে বিভাগে ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯ জনে। বর্তমানে বিভাগের আট জেলার বিভিন্ন হাসপাতালসহ বাসায় ১২৫ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর) বিকেলে রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. এবিএম আবু হানিফ এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৯ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে রংপুরে ১৪, গাইবান্ধায় ১২, কুড়িগ্রামে ৫, নীলফামারীতে ২, লালমনিরহাটে ৪, দিনাজপুরে ১০ এবং ঠাকুরগাঁওয়ের ২ জন রয়েছে। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে আরও ৫২ জনের ডেঙ্গু শনাক্ত হয়।

বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বাসায় চিকিৎসাধীন ৩৪ জন, গাইবান্ধায় ২৯, কুড়িগ্রামে ১১, নীলফামারীতে ১১, দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীনসহ জেলায় ২৪, লালমনিরহাটে ৭, ঠাকুরগাঁওয়ে ৭ এবং পঞ্চগড় জেলায় ২ জনসহ পুরো বিভাগে মোট ১২৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি রংপুরে ৩৪ এবং গাইবান্ধায় ২৯ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. এবিএম আবু হানিফ বলেন, বর্তমানে ডেঙ্গুতে রংপুর ও গাইবান্ধায় বেশি রোগী শনাক্ত হচ্ছে। তবে হাসপাতালগুলোতে রোগীর খুব বেশি চাপ নেই। গত ২৪ ঘণ্টায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন একজন রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এ বছরের শুরু থেকে আজ মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত রংপুর বিভাগের আট জেলায় ৪ হাজার ৯৪ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রংপুরে পাঁচজন, দিনাজপুরে তিনজন এবং গাইবান্ধায় একজন মারা গেছেন। আর ৩ হাজার ৯৬০ জন রোগীকে সুস্থতার ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. মোহাম্মদ ইউনুস আলী বলেন, এখন পর্যন্ত যারা ভর্তি রয়েছে তাদের যথাসাধ্য চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হচ্ছে। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীদের জন্য আলাদা ওয়ার্ড রয়েছে। আমরা সর্বোচ্চ সতর্কতায় চিকিৎসা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। ডেঙ্গু রোগী শনাক্তে কীট সংকট নেই।

এদিকে মশক নিধনের বিষয়ে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র মাহবুবার রহমান মঞ্জু বলেন, আমরা মহানগরকে তিনটি অঞ্চলে বিভক্ত করে মশক নিধন ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালনা করেছি। এছাড়া মানুষকে সচেতন করতেও আমাদের বিভিন্ন কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। উৎস: ঢাকা পোস্ট


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

আর্কাইভ